সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৯:২৬ অপরাহ্ন

২৩ বছর পর কারামুক্ত হচ্ছেন পটুয়াখালীর মানিক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া টিভি
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২১

পটুয়াখালীতে নৌ-ডাকাতিকে কেন্দ্র করে এক ব্যক্তি নিহতের ঘটনায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে ২৩ বছর ধরে কারাগারে থাকা মানিক ওরফে আব্দুল মানিকের জমিন মঞ্জুর করে আদেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

তার বিরুদ্ধে আপিল বিচারধীন থাকা অবস্থায় জামিন আবেদনের শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ তাকে জামিন দেন।

আদালতে আজ মানিকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. আরিফুল ইসলাম। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ।

এর আগে ১৯৯৭ সালের ১৮ অক্টোবরে পটুয়াখালীতে নৌ ডাকাতিকে কেন্দ্র করে এক ব্যক্তি নিহন হন। ওই ঘটনার পরদিন গ্রেফতার হন মানিক ওরফে আব্দুল মানিক। সেই থেকে কারাবন্দি জীবনের শুরু হয় মানিকের। এরমধ্যে তার যাবজ্জীবন সাজা হয় বিচারিক আদালতে। যেটা বহাল থাকে হাইকোর্ট বিভাগে।

এর বিরুদ্ধে আপিল বিচারধীন থাকা অবস্থায় জামিন আবেদনের শুনানি নিয়ে আজ তাকে জামিন দেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ভার্চ্যুয়াল আপিল বিভাগ।

মানিকের আইনজীবী আরিফুল ইসলাম জানান, পটুয়াখালীতে ১৯৯৭ সালের ১৮ অক্টোবর একটি নৌ-ডাকাতির ঘটনায় এক ব্যক্তি মারা যান। ওই ঘটনায় আবুল কাশেম নামের একজন মামলা করেন। এই মামলায় ওই বছরের ১৯ অক্টোবর গ্রেফতার হন মানিক। সেই থেকে তিনি জেলে। এখন তার বয়স ৫৭।

তিনি আরও জানান, এই মামলার বিচার শেষে ২০০৬ সালের ২৪ আগস্ট মানিককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। এর বিরুদ্ধে জেল আপিলের ২০১০ সালের ২ ডিসেম্বর হাইকোর্ট বহাল রাখেন। পরে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেন মানিক। ওই আবেদন বিচারাধীন থাকা অবস্থায় তিনি জামিন আবেদন করেন। বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগ ২৩ বছর ধরে কারাগারে থাকা মানিককে জামিন দিয়েছেন।

শেয়ার করুন :

আরো খবর
© All rights reserved © 2020 brahmanbaria.tv
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102
error: